Nemesis was the ancient Greek goddess of divine retribution. As such, she meted out punishment for evil deeds, undeserved good fortune, and hubris (arrogance before the gods).

– নেমেসিস এই শব্দটা সাথে পরিচয় #ফসিল্‌ ব্যান্ডের কারনে। কিন্তু ইদানিং এই নেমেসিস বিষয়টা মাথা থেকে যাচ্ছে না।
যখন জুলম বেড়ে যায় তা থামাতে এই নেমেসিস এর আগন ঘটে।
ইসলাম ধর্মে #জুলুম হলো – “যার যা প্রাপ্য তাকে সেই প্রাপ্য অধিকার থেকে বঞ্চিত করার নাম জুলুম। সে হিসেবে কারো অধিকার হরণ, বিনা অপরাধে নির্যাতন, আর্থিক, দৈহিক ও মর্যাদার ক্ষতিসাধন, মানহানিকর অপবাদ দেওয়া, দুর্বলের ওপর নৃশংসতা চালানো, অন্যায়ভাবে অন্যের সম্পদ হরণ, অশ্লীল ভাষায় গালাগাল, উৎপীড়ন বা যন্ত্রণা ইত্যাদি কাজ জুলুমের পর্যায়ভুক্ত।”
আর আল্লাহ তা’আলার বাণীঃ

তুমি কখনও মনে করবে না যে, জালিমরা যা করে, সে বিষয়ে আল্লাহ্‌ গাফিল। তিনি তাদেরকে সে দিন পর্যন্ত অবকাশ দেন, যে দিন তাদের চোখগুলো হবে স্থীর, ভীত বিহবল চিত্তে আকাশের দিকে চেয়ে তারা ছুটাছুটি করবে, নিজেদের প্রতি তাদের দৃষ্টি ফিরবে না এবং তাদের অন্তর হবে শূণ্য (সূরা ইব্‌রাহীমঃ ৪২-৪৩)।

জুলুম সম্পর্কে কোরআনে আরো ইরশাদ হয়েছে,

‘আর তোমরা জালেমদের প্রতি ঝুঁকে পড়বে না, জালেমদের সহযোগী হবে না, তাহলে আগুন (জাহান্নামের) তোমাদেরও স্পর্শ করবে।’ সূরা হুদ : ১১৩।

কিন্তু আমাদের সমাজ ব্যবস্থা যতই দিন যাচ্ছে না মিথ, না ধর্ম, না #যৌক্তিকতা কোন কিছুরই তোয়াক্কা করছে না, শুধু পড়ে আছে নাম ও স্বার্থের পিছনে।

1 thought on “Nemesis

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Related News